গেইল তাণ্ডবে পাঞ্জাবের জয়

ক্রিস গেইল এবারের আইপিএলের নিলামে প্রথম দুই দফায় অবিক্রিত ছিল,  পরে নিলামের  তৃতীয় দফায় তার ভিত্তি মূল্যের ২ কোটি রুপি দিয়ে  কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব তাকে কিনে নেয়। আবার একাদশেও জায়গায় পাচ্ছিল না। অবশেষে তৃতীয় ম্যাচে জায়গা পেয়ে নিজের জাত চেনালেন টি-টোয়েট্টি ক্রিকেটের এই দৈত্য। ৩৩ বলে করেছেন ৬৩ রানের দানবীয় এক পারফর্মেন্স। মাত্র ২২ বলে করেছেন ফিফটি। এই ৬৩ রান করতে তিনি ৭ চার ও ৮ ছক্কা মেরেছেন।

ক্রিস গেইল টি-টোয়েট্টি ক্রিকেটের বড় একটি বিজ্ঞাপন। অথচ তাকেই বুড়ো বলে বাতিলের খাতায় ফেলে দিয়েছিল আইপিএল। এবারের আইপিএলে হয়ত তকে দেখা যেত না। নিলামের সময় দুই দুই দফায় তার নাম উঠলেও তকে কেউ কেনার আগ্রহ দেখায় নি। আবশেষে তৃতীয় দফায় এসে তাকে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব কিনেছিল। পাঞ্জাব কিনলে কি হবে একদশে যে চান্স পাচ্ছিলও না সে। অবশেষে তৃতীয় ম্যাচে  মার্কাস স্টয়নিস বদলে একদশে সুযোগ পেল। একাদশে সুযোগ পেয়েই নিজে তো ম্যান অব দা ম্যাচ হলেন এবং দলকেও জিতালেন।

গেইলের ঝড়ো ইনিংসের উপর বড় করেই ১০ ওভারে  ১ উইকেটে ১১৫ রান তুলে নেয় পাঞ্জাব। অবশেষে ১১ তম ওভারের ৩য় তম বলে ইমরান তাহিরের হাতে ক্যাচ তুলে প্যাভিলিনের পথ ধরেন ক্যারেবিয়ান এই দানব।  তিনি আউট হওয়ার আগে পাঞ্জাব এর সংগ্রহ দাঁড়ায় ১২৭ রান। পরে মায়াঙ্ক আগরওয়াল ৩০, যুবরাজ সিং ২০, করুণ নায়ার ২৯ রানের ভর করে চেন্নাইকে ১৯৮ রানের লক্ষ্য দেয়। চেন্নাই এর হয়ে ইমরান তাহির চার ওভার বল করে ৩৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট এবং শরদুল ঠাকুরও ২ উইকেট নিয়েছেন ৩ ওভার বল করে ৩৩ রান দিয়ে । এছারা শেন ওয়াটসন, ডোয়াইন ব্রাভো এবং হরভজন সিং একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

জবাবে চেন্নাই ১১৩ রানের মাথায় চার উইকেট হারিয়ে ফেলে। পরে দলের অদিনায়ক  মহেন্দ্র সিং ধোনির উপর ভর করে ২০ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ১৯৩ রান করতে সক্ষম হয়। ধোনি ৪৪ বলে ৭৯ রানের ঝড়ো একটি ইনিংস খেলেন। এছারা অম্বাতি রায়ুদু করেন ৩৫ বলে ৪৯ রান এবং রবীন্দ্র জাদেজা করেন ১৩ বলে ১৯ রান।

পাঞ্জাব এর হয়ে অ্যান্ড্রু চার ওভার বল করে  ৪৭ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। এছারা রবিচন্দ্রন অশ্বিন এবং মোহিট সারমা একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

 

SHARE