আর্সেন ওয়েঙ্গারের বিদায় ও তার রেকর্ড

অবশেষে সমার্থকদের কথাই ঠিই হলো। দীর্ঘ ২২ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে আর্সেনালের ডগআউট থেকে অবসর নিলেন আর্সেন ওয়েঙ্গার। সমার্থকরা এখন আর লীগে চতুর্থ স্থান এবং এপএ কাপ চায় না। তারা চায় চ্যাম্পিয়ান লীগ জিততে, তারা চায় প্রিমিয়ার লীগ জিততে। আর্সেনালকে ৩টি লীগ শিরোপা, ৭টি এফএ কাপ, ৭টি এফএ কমিউনিটি শিল্ড জেতানো ওয়েঙ্গার অনেকদিন ধরে সমালোচনার শিকার। অনেক দিন ধরে আর্সেনালকে বড় কোন টুর্নামেন্টের শিরোপা জেতাতে পারছিলেন না। টানা দুই বারের মতো লীগে শীর্ষ চারের বাইরে থাকার আশঙ্কা। যদি এবার ইউরোপা লীগ না জেতাতে পারেন তা হলে আর্সেনাল সামনের সিজনে চ্যাম্পিয়ান লীগও খেলতে পারবেন না। তাইতো এমন সিদ্ধান্ত জানালেন ফরাসি এই ফুটবল ম্যানেজার।

১৯৯৬ সালে আর্সেনালে যোগ দিয়ে থেকেছেন দলের অনেক সুখ দুঃখের সাক্ষী হয়ে। সেখানে তিনি ক্লাবের দীর্ঘতম মেয়াদের ম্যানেজার ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বেশী মেজর ট্রপি জয় লাভ করেন। প্রায় ২২ বছর পরে, ২০১৭-১৮ সিজন শেষে আর্সেনাল ম্যানেজার হিসাবে পদত্যাগ করার তার ইচ্ছা গতকাল ঘোষণা দেন। এই ২২ বছর  আর্সেনালে থেকে করেছেন অনেক রেকর্ড। আসুন আজ জেনে নেই সেইসব রেকর্ডের কিছু তথ্য-

আর্সেন ওয়েঙ্গারের যে রেকর্ডেটি প্রথম আসে তা হলো ২০০৩-০৪ মৌসুমে অপরাজিত লীগ শিরোপা জয়।  ফুটবল ইতিহাসে ওয়েঙ্গার একমাত্র কোচ হিসেবে এই বিরল কীর্তি গড়েন।

ফরাসি ফুটবলার থিয়েরি হেনরি আর্সেনালে ওয়েঙ্গারের অধিনে ২২৮ গোল করেছেন। একই ম্যানেজারের  অধিনে একই লীগে খেলে এত গোল আর কারো নেই।

প্রিমিয়ার লীগে আর্সেন ওয়েঙ্গার নগর প্রতিদ্বন্দ্বী টটেনহামের থেকে বেশি জয় পেয়েছে। লিগে যেখানে টটেনহামের জয় ৪২০টি, সেখানে আর্সেন ওয়েঙ্গারের জয় ৪৭৩টি।

আর্সেন ওয়েঙ্গারের আর্সেনালের হয়ে ১৯৯৬-৯৭ থেকে ২০০৫-০৬ সিজন পর্যন্ত এই দশ বছরে ১১টি এবং ২০০৬-০৭ থেকে এই সিজন পর্যন্ত ৬টি শিরোপা জিতেছেন। ওয়েঙ্গার সর্বশেষ মেজর ট্রফি ফাইনালে চেলসিকে হারিয়ে ২০১৭ সালে এফএ কাপ জিতেন।

আর্সেন ওয়েঙ্গারের আর্সেনালের হয়ে সবচেয়ে বেশি ৬২টি ম্যাচ খেলেছেন চেলসির বিপক্ষে। যার মধ্যে ২৩টিতে জয় এবং ২১টি পরাজয় আর বাকি ১৮ ম্যাচ ড্র। ওইনিং পারসেন্ট ৩৭.১%। এবং রিডিং ফুটবল ক্লাবের বিপক্ষে ১০ ম্যাচ খেলে আর্সেন ওয়েঙ্গারের শতভাগ জয় তুলে নিতে সক্ষম হয়।

আর্সেন ওয়েঙ্গার প্রিমিয়ার লিগে ৩ বার সিজনের সেরা কোচ ও ১৫ বার মাসের সেরা কোচ  নির্বাচিত হয়েছেন । এবং একবার বছরের সেরা কোচ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

আর্সেন ওয়েঙ্গার ম্যানেজার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডর কিংবদন্তি স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের  সবচেয়ে ম্যাচ পরিচালিত করার রেকর্ড ভেঙ্গে দেয়।

আর্সেন ওয়েঙ্গার ইংলিশ ফুটবলে প্রথম খাবারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলেন। তিনিই প্রথম ডায়েট কন্ট্রোলের ওপর জোর দিয়েছিলেন। ফুটবল পন্ডিতরা তার এই বিপ্লবের অবদানের তাকে সাধুবাদও জানায়।